হে নদী তুমি অনর্বত প্রবাহমান
অনাদি অতীতের স্মৃতি বিজড়িত
অনন্তকাল ধরে বয়ে চলেছো
দুর হতে বহু দুরের দিগন্তে
জুড়ালে সহস্র জীবন
তোমার সিন্ধ শীতল উপকূলে


তোমার শান্ত সমীরে
এ জীবন করিলে মুগ্ধ আমার
হেথায় শান্তি, শান্তি, শান্তি
জীবনের অন্তিম আর পরিসমাপ্তি
এখানেই সব শেষ
যত কলহ,অভিমান,অনুতাপ
প্রেম,প্রীতি,বিরহ,বিলাপ
এখানেই ছিন্ন শত বন্ধন


একে একে শুন্য করিয়া বুক
এ মাটিতেই মিশে আছে
আমার পূর্বপুরুষ
হেথায় চির অবসান
দীর্ঘ জীবনের পূন্য তৃপ্তি
তারপর কেও আর মনে রাখে না
প্রতিদিনকার মতো নিয়মিত
সূর্য ওঠে আবার অস্তে চলে যায়
এভাবেই দিন বাড়ে ঘুর্নায়মান পৃথিবীর ।।