সহে না আর তর
তোর কিনারে বানাতে চাই ঘর
জোয়ারভাটা দেখতে পাব কাটবে অবসর।


হাওয়াতে শনশন
উঠলো কেঁপে উন্মনা ঝাউবন
গাঙচিলেরা ঝাঁকে ঝাঁকে শিকারে দেয় মন।


ঢেউ ভাঙে কলকল
পা ছুঁয়ে যায় ফেনায় ভরা জল
ভেসে আসে কোথা হতে চাঁপার পরিমল।


মউ বিদেশি নয়
একটু আগে পেলাম পরিচয়
কবরীতে গোলাপ গোঁজা, জলে ভীষণ ভয়।


কাঁকড়া ছোটে ওই
পিছু লেগে বিফল আমি হই
একটা ভালো ঝিনুক পেয়ে রুপসির হইচই।


আমি দেখতে চাই
না দেখালে মনে তৃপ্তি নাই
সাদার গায়ে খয়েরি রং, বৃন্দাবনের রাই।
এদিক-ওদিক খুঁজি আমি যদি অমন পাই
ইচ্ছে করে আজ হারিয়ে যাই
অর্ণবে ঝাঁপাই।