পাখি আমার বড়ই প্রিয় ওরাও আমায় ভালোবাসে
দিনের বেলা গান শোনাতে ময়না টিয়া দোয়েল আসে।
লেজঝোলা আর বুলবুলি ও ডাকবে বসে গাছের ডালে
আমি তখন দাওয়ায় বসে কন্ঠ মিলাই সুর ও তালে।


খাবার দিলে খায় না ওরা কাক আর চড়াই সাবাড় করে
শালিক গুলোর কিচিরমিচির ঝগড়াঝাঁটি উঠোন পরে।
মাটির সরায় জল রেখে দিই ওতেই ওরা তেষ্টা মেটায়
বিকেলবেলা গা জুড়োতে  চড়াই বায়স পাখনা ভিজায়।


কোথায় পাবো এমন বন্ধু বনের পশু পাখির মতো
ওরা শুধু দিতেই জানে মন ভরে যায় বলব কতো।
সাধ্যমত চেষ্টা করি একটা কিছু ওদের দিতে
কেউ বা এসে গ্রহণ করে লেজঝোলাটা চায়না নিতে।


বউ-কথা-কও চালাক অতি চাইলে কি আর দেখা দেবে
কাছ ঘেঁষে না দূরেই থাকে সময় কাটাই ভেবে ভেবে।
যদি বলি তিলেক  দাঁড়াও তোমায় দেখে মেটাই জ্বালা
ফুড়ুৎ করে উড়ে পালায় পক্ষীরা নয় মোটেও কালা।


বিচিত্র এই পক্ষী জগত কয়েকটিকে মাত্র জানি
প্রকৃতিকে মাতিয়ে রাখে এই কথাটি সবাই মানি।