*      
    রত্নগর্ভা ভারতমাতার মাথায় মণি
    সম্পদে মা স্বয়ম্ভরা, দেশ এমনি।
          সাগর মায়ের পদতলে
          মুক্তামালা দুলছে গলে
লোলুপ দৃষ্টি করলো হরণ বল প্রয়োগে
  শৃঙ্খলিত দেশের মানুষ ও' দুর্যোগে।


জমে আছে কত ব্যাথা বলবো কারে
সাহস জোগায় জগন্মাতা বারে বারে।
           'ক্ষুদ্র জীবন ক্ষণস্থায়ী
          হিংসাকে কর ধরাশায়ী
তবেই আমি উঠব জেগে আগের মতো
তুই একা নয়, বীর সেনানী সঙ্গে কতো।'


   মা'র পরশে হৃদয় আমার উঠলো রেঙে
ভেদাভেদের প্রাচীর এবার ফেলবো ভেঙে।
            স্বচ্ছ হবে ভারত ভূমি  
             শৌর্যবীর্য গগনচুমি
       সর্বধর্ম সমন্বয়ের তুলবো ধ্বজা
    সবার জন্য রইবে খোলা এর দরজা।


      বর্ণবিদ্বেষ ধর্মবিদ্বেষ এমন কেন
   প্রেমের পরশ একটুও নেই শত্রু যেন।
             সবার আগে সহিষ্ণুতা
            বুঝবো তবেই মর্মব্যথা
   উত্তরণের সোপান এটাই স্বপ্ন বোনো
এ ছাড়া আর বিকল্প পথ নেইকো কোনো।