ঝন-ঝন করে থালা-বাটি সব
নাচছে তা-ধিন-ধিন।
গিন্নির মাথা বেজায় গরম,
সকালটা আজ খুঁজছে শরম;
ঝগড়া-ঝাটিরা নক করে বলে
একটু জায়গা দিন।


হাটের গরম হাতের থলিতে
চেয়ে চেয়ে মজা দেখে।
তেলের গরমে পুড়ছে বেগুন,
গলাটা উঁচিয়ে ঝরলো আগুন,-
পায়ের ধুলোটা ওখানেই রাখো
এনেছ যেখান থেকে।


শশুর বাড়ীর ষাঁড়টিও ভালো
রাগটুকু একরোখা।
সুধী-জন যতো বলছি শোনো;
মানলে না’হয় নাইবা মানো,
দুনিয়ার সবে জ্ঞানী-গুনি লোক
আমিই কেবল বোকা!