চলতি গাড়ি যাচ্ছি বাড়ি দিবস শুরুর বেলা,
ঘুমতি নয়ন আনমনা মন একাকি একেলা।
যাত্রা পথে বেশ ক্লান্তিতে হঠাৎ ঘুমের ঘোরে,
মুদলো আখি করে চালাকি জানালার ঠিক ধারে।


পাশের সীটে বেশ ফুটফুটে উদিত রমনী,
বসলো কখন জানেনা মন সেও একাকিনি।
আমার পাশে ভীরু বেশে তারও আখি দুটি,
ঘুমে বিভোর হয়েছে ঘোর দেখি জেগে উঠি।


কাধেতে তার মস্তক আমার হাত রাখা তার বুকে,
কম্পিত মন হল তখন উষ্ণতারই সুখে।
ক্ষানিক বাধে আমার কাধে পরলো তারই মাথা,
পরিচয়হীন সে যে অচিন  হয়নি কোন কথা।


কত আপন মনে হয় দুজন ক্ষনিকের তরে,
নেইকো জানা তবুও চেনা জনম জনম ধরে।
অনিচ্ছার ইচ্ছাতে ডুবে ছিলাম তার প্রেমে,
থামলো গাড়ি যে যার বাড়ি চলে গেলাম নেমে।


অচিন্তার চিন্তাতে আমি আজো আছি ডুবে,
পিছু ফিরে দেখেছিলাম জানি না কি ভেবে।
মুখটি যে তার কেন বারে বার আজো মনে হয়,
দুজন দু পথের পথিক কেউ কারো নয়।