গাঁয়ের মাঝে        সকাল সাঁঝে
         পাখি করে কলরব,
দূরে ধানমাঠ         কাছে খেয়াঘাট
        জুটে হেথা যাত্রী সব।


বৈঠা নিয়ে হাতে      রোজ খেয়াঘাটে
         মাঝি নৌকা বেয়ে যায়,
দূরের আকাশে       শঙ্খচিল ভাসে
        নৌকা ভিড়ে কিনারায়।


দূর গ্রাম হতে        রাঙা মাটিপথে
        পথের পথিক চলে,
ছেলেরা ঘাটে        সাঁতার কাটে
       দিঘির শীতল জলে।


পথের বাঁকে         দাঁড়িয়ে থাকে
       বাছুরী ও রাঙী গাই,
মেঠো সুরে          বাঁশি বাজে দূরে
      কান পেতে শুনি তাই।


দিনের শেষে        পাহাড় ঘেঁষে
      সূর্য আলোক লুকায়,
নামে আঁধার       বাজে সানাই
      আমার নির্জন গাঁয়।