ব্যাঙ চললো ব্যাংককে আর
চিল চললো চাইনাতে
রাত দুপুরে গান ধরল
হাসনাবাদের হায়নাতে।


মৎস্য বলে, ‘বৎস শোনো,
চিংড়ি কোনও মাছই না।’
নেংটি বলে, ‘মাউস রে তোর
রঙ্গ দেখে বাঁচি না!’


হাঁড়ি নিয়ে হাঁড়িচাচা
যেই না গেল বাজারে
হোগলডুরির হুক্কা শেয়াল
উঠল ডেকে হাজারে।


ঘোঁত-ঘোঁতিয়ে বলল ঘোঁতু,
'আমায় কিন্তু ঘাঁটাস না
রাত দুপুরে ঘুমের সময়
চেঁচিয়ে গলা ফাটাস না।'


কঙ্গো থেকে কুমীর এল,
সোঁদরবনে সাঁতরে!
বাঘ বাবাজী উঠল হেঁকে,
'আমরা রাজার জাত রে।'


চাঁদনী রাতে চালতা গাছে
পেত্নি বাজায় করতাল
হেঁড়ে গলায় হাকিম হাঁকে,
'কালকে হবে হরতাল।'


এমন সময় তেঁতুল গাছে
ভূতের রাজা মামদো
রাত দুপুরে বায়না ধরে,
‘পেত্নি, মুঝে হাম দো!’


পেত্নি বলে, ‘মামদো রে তুই
ঘুমটা দিলি চটকে,
মদনপুরের মদনা রে তোর
ঘাড়টা দেব মটকে।’