দেখেছিলাম তাকে জীবন যৌবনে
ফোয়ারার মতোই সাধ ছিল মনে।
প্রতিষ্ঠার লাগি কী নিরলস প্রচেষ্টা
রঙিন স্বপ্ন বাস্তবায়নে কত চেষ্টা।


ধুলি মাখা বিষন্ন আঁধার কুটিরের
দেওয়ালে জীবনের রঙিন স্বপ্নের
জলছবি টাকে নৈপুণ্যে সাজিয়ে
রাখতে পেরেক ঠুকেছিল নির্ভয়ে।


নির্দয় পাথরে বিঁধেনি কোন মতে
বরং ঠক্ ঠক্ ধ্বনি উঠলো তাতে।
বোঝেনি সে কতটা রূঢ় এই বাস্তব
সহজে চৌকাঠ পেরোনো অবাস্তব।


যৌবনে এসে সে কান পেতে শোনে
দেওয়াল ও ধুঁকে ধুঁকে কাঁদে যেন।
বিধাতা বলেন এখনো শুনতে পাও না
বিষণ্ণ দেওয়ালের অবিরাম কান্না?

রেখে দাও ছবিটা কে উপুড় করে
ঘাট পারাবারের সময়ে হাত ধরে
তাকে তুলে নিয়ে দুঃস্বপ্নের মালা
পরিয়ে ভাসিয়ে দিও গো সাগরে।