পতন


   তখন ছিলাম পিউর একা
   ফাল্গুনি ফুল দিলে দেখা
   মন বলে তাই ইউরেকা–
   বুকের চাতাল
   উথাল-পাথাল
   হঠাৎ খেলাম ভ্যাবাচ্যাকা!


তারুণ্যে তা রা না


তারানা
আসছি এবার দাঁড়া-না
তোর হাতে যে ফুলটা আছে
একটুখানি নাড়া-না
এইতো কাছে এসে গেছি
ফুল দিতে হাত বাড়া-না
তোর মনে যে ক্ষোভটা ছিল
এবার তাকে তাড়া-না–


লক্ষ্মী!এতো রাগিস কেন?
লেজ গুটিয়ে ভাগিস কেন?
তোকে কিনে গিফ্ট যে দেবো
নাই পকেটে চার আনা!
সেই দুখেতে বুকে ক্ষত
মলম দিয়ে সারা-না।