নারী উন্নতি


উন্নতির পথে হেঁটে চলেছে নারী হাঁটতে তাদের লাগছে কেবল গয়না আর শাড়ি তারা কেবলই ভাবে কিভাবে বরের পকেট মারি ৷


রান্নাবান্নায় নাইকো মন সিরিয়ালে প্রাণ সমর্পণ তাই তো স্টার জলসা, জি বাংলা ও কালার্স কামিয়ে নিচ্ছে লক্ষ কোটি টাকার ধন ৷


নারী তোমাদের কেন এত বাড়াবাড়ি বরের যদি না থাকে গাড়ি ওলা বুক করছো কথায় কথায় বরের উপর রাগ করে মরছো ৷


সিনেমার খেয়াল আছে হলে চলছে দৃষ্টিকোণ ওদিকে তো ধুলোয় ভরছে একবারটি চেয়ে দেখো ঘরের কোন ৷


উন্নতির পথে নারী তাই তাদের টাকা অগাধ ব্যাংক থেকে টাকা তুলে বরেদের বুকে দিচ্ছে আঘাত
বরেরা ব্যাংকে গিয়ে বলছে
বদজাত নারীদের জন্য স্বামীদের করুন আবেদন
ক্রেডিট কার্ড টা ব্লক করে দিন দাদা ব্লক করে দিন দিনে দিনে বেড়েই চলেছে আমার এই ঋণ ৷


হেয়ার কালার বাটিতে গুলি লাগাচ্ছে ফ্যাশনেবল এলোচুলে
তারা কেবলই বেড়াচ্ছে উড়ে হয়ে ভবঘুরে ৷


তারা বলে -
নারীদের সময় কাটতে চায় না
সারাদিন শুধু রান্না আর রান্না
এইসব শোক করে বন্ধুদের বলে করে যাচ্ছে কান্না ৷


নারীরা আজ ভীষণ ব্যস্ত তাদের দিবানিশি কত কর্ম তারা বলে তোমরা কি বুঝবে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ এর মর্ম ৷


দিনে দিনে বাড়ছে তাদের চুলের টিপি দিনরাত পাল্টাচ্ছে হোয়াটসঅ্যােপর ডি.পি
তাদের বর কষ্ট করছে, হাঁটছে মাইলের পর মাইল তারে শুধু বসে বসে পাল্টে যাচ্ছে প্রোফাইল ৷


ফোন এলে সব ফেলে উঠে করে গল্প ইশারায় বুঝিয়ে দেয় কাজ আছে অল্প, বরেরা দৌড়ে গিয়ে করতে থাকে রান্না দুচোখে তাদের শুধু বুক ভরা কান্না,
বেচারা - আর না আর না বলে করেনা প্রতিবাদ তারা জানে প্রতিবাদ করলেই উড়ে যাবে মাথার ছাদ ৷


বরেরা এখন বলে তোমায় ভালবেসে গেছি ফেঁসে , তোমার কাছে এসে মিলেমিশে এখন জ্বলে যায় বিষে-বিষে ৷


নারী কেবল বরদের তেল মাখিয়ে বলে আহা গো আমার টাকার ক্ষনি তুমি তো দেখছি বেজায় ধনী তাইতো তোমায় করেছি মুরগি , তাই বলে ভেবনা আমি তোমার কেনা ঝি ৷


উন্নত নারীরা অনুষ্ঠান ও পুজো এলে বর কে আদর করে বলে ওগো আমার ও দুটো শাড়ি দাও না গো গঙ্গা-যমুনা, সিল্ক শাড়ী ,বেনারসী, কলমকারি, কাঞ্জিভারাম , ঘিচা, তাঁত পড়ে করবো বাজিমাত ৷


সুধু হলে হবে শাড়ি চাই গয়না ভারি ভারি নাকি চাই নদ , কানি চাই কানপাশা, হাতে চাই মানতাসা,
আর চাই বোড়ো পাসা, গলায় চাই মোটর হার সাথে সাত নরি , দিও গো আমায় একটা সুন্দর সোনার ঘড়ি ৷
আরো কত কি চাই বুঝলে এ হলো উন্নত নারীর নমুনা মাত্র ৷