নিভৃতের কোলে লেটে রাখি মোরে
বিহগ চলিলে অহে,
জীগরের ক্রোড়ে কোহে কাহাফের
কালা হুতাশন বহে|
বাহ বাহ সাব্বাস,
কেন যে করিলে বন্ধু ওলোই
মম এ সর্বনাশ?|
রেখে গেলে মোরে তরুহীন বনে
হাহাকার বারিহীন,
দিবস রজনী তোমার লাগিয়া
কাঁদি শুধু একাকীন|
তব স্মৃতি ভরা নদী বুকে নিয়ে
রুধিধারে ভাসে বুক,
আমারে একাকী রাখিয়া মরুতে
কেমনে স্বাদিছ সুখ?|
নির্বাপনের পূবে জ্বলে উঠা
প্রদীপের ন্যায় যবে,
ক্ষণিকের প্রেম সুখ আলো ছড়ি
দিলে এ বক্ষ ভবে|
প্রিয়া তুমি চলে গেলে,
চলে গেলে তুমি মন -খাঁচা ভেঙ্গে
নির্দয় বাহু মেলে?|
আর কোনদিন হবে নাতো জানি
অভিসার আলাপন,
বিদায় কালেও হলো নাকো কথা
ডুবেছে অর্কধন|
ঝড়ে গেলে তুমি অকাল পকালে
মৃত পর্ণের মত,
ঠুসে দিয়ে হিয়ে আগুন হলকা
দুঃখাদি অবিরত|
চাহিয়া তোমার পানে,
দর্শিনু এক শকুনী ভয়াল
দু আখি দৃষ্টি-বানে|
বারিধির বুকে বারিছটা হীন
কূটকালে মধুবন,
পল্লবহীন কান্তার যেন
দহিতেছে হুতাশন|
হৃদয়ের চরে ফলেনা ফসল
তপ্ত ব্যাথার বানে,
আমি যে বন্ধু খর তাপে সেই
মৃত্যু দুয়ার পানে|
তুমি গেছ তাই প্রকৃতি নিয়েছে
রুদ্র রুগ্ন রূপ,
শবের রূপেতে রূপ নিয়ে সব
হয়ে গেছে নিশ্চুপ|
চলে গেলে প্রিয়া চলে গেলে তুমি
রাখিয়া আমায় দুখে,
তবু নাহি চাই দুখ শুধু চাই
চিরদিন থেকো সুখে|