ক্ষমাশীল মাগো! সইবি কত ছেলের আবদার ;
তিয়াত্তরে পা দিয়ে তবুও কাঁদে শান্তি বারবার।
আজ যাদের ভাবনায় তোর চলার ভার, ন্যস্ত,
হরির লুটে বাতাসা কুড়োতে, সবাই মহা ব্যস্ত। 


নীচের তলায় দেখি ওই পতাকা তোলার দল,
সংখ্যায় বেশি, তবু নির্জীব ও সকলেই দুর্বল। 
ছেলেমেয়ে যারা প্রতিষ্ঠিত - দেখে নিজ সংসার ;
বল না মা, আখের গোছানো এমন কী লজ্জার!


তুই অভাগিনী, স্বাধীনতা সহ পেলি রক্তের ভাগ ;
গঙ্গা-পদ্মা বইছে স্রোতে, মোছে নি তবুও দাগ।
সেই একভাবে সুযোগ পেলে রনদামামা যুদ্ধের,
মিথ্যে লড়াই বাঁচিয়ে রাখা সন্তানের রকমফের।


এভাবে চলে হয়তো শতক কাটবে ঘুমের ঘোরে,
জঞ্জাল সাফ তবু মানবতা ভাসছে নেশার তোড়ে।