ইশ! মেয়ে বানিয়েছো-শৈশবের নামটিও দাওনি
একটু খোশগল্প করলেই বলোঃ ছেলেমানুষী- আদিখ্যেতা!
অথচ, আমি একজন বাঙালি মেয়ে
শৈশবি আচরণ আমার মেয়ে মানুষিকতা।


কুঁচিলা লতা দিয়ে মালা বানানো শিখিয়েছো
গলায় পরিয়েছো মেয়ে মানুষের নাম,
কুঁচিলার সবজি কাটাকুটি করিয়ে
চুলায় রান্না করিয়েছো,
চড়ুইভাতি খেলার বয়স থেকেই
মেয়ে মানুষ বানিয়ে রেখেছো,
মেয়ে মানুষ বলতে করেছো ভীষণরকমের আপোষ।


তোমরা এখন পুরুষ-আজব প্রকার মানুষ
পুরুষতন্ত্রের আধিপত্যে উড়িয়েছো ফানুশ,
তবে, বিশ্ব মাতাল উড়াউড়ি-নারী'র ছায়ায় পরে
দিন-রাত খেটে যাও কোথায় থাকে হুঁশ?
তখন কোথায় থাকে হুঁশ!


আমি মেয়ে মানুষ-একজন বাঙালি মেয়ে
শৈশবি আচরণ আমার মেয়ে মানুষিকতা।
ছেলেমানুষী নয়-মেয়েমানুষী।
ছেলেমানুষী বলতে পারো করবোনা আর অভিযোগ
তবে, আমি একটা মানুষ, আমি একটা মানুষ।।