নীল সাজে নীলাম্বরী-দেখেছি তোমায়
মুখোমুখি দাড়িয়ে-তিতাসের কিনারায়।


তোমার চোখ পড়ে নায়-
প্রজাপতির মত ডানা জোড়াও নিভে নায়,
আমিও ঠিক তাই, দেখেছি অপরুপা তোমায়।
সেদিন তোমার চোখ বলেছে এক
পরদিন তোমার মুখ বলেছে আরেক,
কিন্তু, তোমার মনের কথা
তোমার আমার আদি-কথা,
তিতাসের ঢেউয়ে মূর্ছনার সুরে
বন্দরের ঘ্রাণে, প্রেমেরি মাদকতা।


নগরের ইট পাটকেল যেমন
পুরোনো মাটির টানে কাদে,
তিতাসের অগাধ জল তেমন
ভেসে যায়, পুরোনো দিনের আস্বাদে।
হয়তো কোন একদিন ছিলাম
তিতাসের জলের সাথে মিশে,
জীবনের স্বাদ সেদিন চেয়েছিলাম
তোমার অগাধ প্রেমের আবেশে।


আজ হয়তো তুমি জানোনা, তুমি বুঝনা
তুমি না জানলেও, কেউ না জানলেও
জানে এই তিতাস, বুকে নিয়ে ইতিহাস;
কাউতলীর ময়দানে, পুরানো দিনের টানে
এজনমেও দেখেছি তোমায়, সুনীল প্রেমের সূতনে।