জীবনযুদ্ধের অবিচল কঠোরায়,
শৃঙ্খল স্বাভাবিক, দিনগুলি নাহি পায়
সেই ধারাবাহিকতা, নিশ্চলতায়
হেয় সামাজিকতা, পারিবারিকতায়
বৃক্ষবাগানে পরগাছা যাই,
স্বত্তাবিহীন আমি ইনসান তাই ।।


মানুষের প্রাণ পরাধীন হরণে,
দানবের মান যশ গড়ায় স্বপ্রাণে।
রাজা সেজে পূজার আসনে,
সাধুবেশে মাজার প্রাঙ্গনে।
কলুষিত মনে কেহ আমলে ফরজগানে,
খোদা ভগবান জপে, ঘাতক মাতাল জনে।।


পৃথিবীর পরিবেশ ও মনুষ্যনীতি,
কৃত্রিম করে বেশ হল মানবঘাতি।
কৃষাণীর জমিচাষ আজ অলস্যমতি,
মেশিনের চালে ভাত, প্লাস্টিকে জাতি।


জনে জনে সার্থটানে,বিষধর বিষাক্ত নগরী
লোভে মগ্ন,কর্মদোষে নিরর্থ জীবনধারি
কেহ লোভী অর্থের লোভে,কেহ লোভী ভূমির লোভে
কেহ লোভী খ্যাতির লোভে, কেহ লোভী কামের লোভে


লোভে পাপ, পাপে মৃত্যু, মৃত্যুই শেষ তাকি সত্য?
মরবে দেহ, ঝরবে রবি, রবে আত্না নিলীমার ছবি,
করলে সৎ, স্বার্থক সবি, পাবে স্বত্তা সত্যের দাবি ।।