দুটি সোনালি বাতি ঝুলে, সুদূর পূবাইল চরে
টাওয়ার আর শব্দ হারায়, গভীর চোখের তরে,
নারিকেলের পাতা নড়ে ঝিকিমিকি করে
ধূসর সাগর চোখে ভাসে, তোমায় মনে পরে।


এই ফাল্গুনের রাতে, আকাশে চাঁদ হাসে
জোৎস্নার আলোই খুজি তোমায়, নেই তুমি পাশে,
তুমিকি নক্ষত্র; আছোকি আকাশে ভেসে
যদি না হও! তবে কেন? নক্ষত্রে যাই মিশে।


তুমি নক্ষত্র; যদি না হও, হবে কোনএকদিন
মুছে যাবে জীবনের লেনদেন, থাকবেনা কোন ঋণ
শূন্যে শূন্যে মহাশূন্যে, মিশে রব একাকার
ভুলে যাব কি ছিলনা, কি ছিল পাওয়ার।


এই পৃথিবীর প্রান্তরে, হয়তো থেকে যাব দূরে
তোমাতে আমি, আমাতেই তুমি, জন্মেছি একি ডোরে,
এই জন্মের মৃত্যু নেই, জেনেছি ঈশ্বরে
হৃদয়ের জোরে হৃদয় অমর, থাকবো জীবনের পরে।