(লেখাটি কারও কষ্ট দেওয়ার অপপ্রয়াসে রচনা নয়
শুধু লেখার জন্যই লেখা সবাইকে ধন্যবাদ)
---------------------------------------------


শিশুকালে "কবি" কথাটা যখন শুনতাম তখন ভাবতাম
কী না জানি এক অলৌকিক মহিমা আছে
এই নামের মাঝে!
আর যখন তাদের কবিতা পড়তাম,
মুগ্ধতায় চোখ ভিজে আসত
আবেগে আপ্লুত হত মন!


স্বপ্নেও কোনোদিন কবি হওয়ার কথা ভাবতাম না
তবে বড় সাধ হত- যদি নিজের চোখে
একদিন কবি দেখতাম, তাহলে ধন্য হতাম!
"কবি" দেখা আমার চোখের ভাগ্যে জোটেনি!
ভাবতাম সৃষ্টিকর্তা বুঝি কবি'দের আলাদা বৈশিষ্ট্য দিয়ে
পৃথিবীতে পাঠান। আমার ধারনা সঠিক কিনা জানি না।


তবে যখন বড় হলাম, বুঝতে শিখলাম
কবি হতে গেলে অনেক ঝড় বৃষ্টি মেঘ
বুকের তলে কবর দিতে হয়, তাহলেই কবি।


শিশুকে চক-শ্লেট দিয়ে স্কুলে পাঠালে
সে বিদ্যান হয়ে বাড়ি ফিরে, এ দিন এখন আর নেই।
শিশুকে বিদ্যালয়ে ভর্তি করাতে গেলে
পুরো জীবন বৃত্তান্ত লাগে, নাগরিক সনদ লাগে আরো কত কী!
বাবার মাসিক উপার্জন কত সেটাও লাগে।


কিন্তু আজ সেই অলৌকিক মহিমান্বিত "কবি"
উপাধি পেতে গেলে কিচ্ছু লাগে না।
বুকের তলে কবরও না,
বুক পকেটে কলম থাকলে আমিও কবি।


রচনা : ০২.০৪.২০১৫ খ্রিঃ