এই গীতি কবিতাটি সম্পূর্ণ সিলেটের আঞ্চলিক
বাসায় লিখে দিয়েছি,হয়তো অনেকের চোখে
কবিতাটির বানান ও শব্দ ভুল বুঝতে পারেন।
আঞ্চলিক শব্দ গ্রামারের সাথে মিলেনা।
    ----------------------
.              চাম্পার বিয়া
                ----------
.       মেন্দি দেও গো চাম্পার হাতে
        খাইল চাম্পার বিয়া,
        খাইল আইবা দামান বেটা
        বইরাতি সকল লইয়া !


        চাম্পার মাইঝি টিপে কান্দইন
        চকির কোনায়া বইয়া,
        কিলা দিতা মায়ার পুরি
        পালকিতে গো তুলিয়া !


        চাম্পার ভাবি অলইদ পিসইন
        কাটের উপর বইয়া,
        তান নননরে অলইদ দিবা
        ইষ্টি কুটুম মিলিয়া !


        চাম্পার বাপ পেরেশানি
        বিয়ার খরছ লইয়া,
        মসলাপাতি খরছ যতো
        বাবুছিরে দিলা সমজাইয়া !


        চাম্পার চাচা গরু আনইন
        উঠানেতে ঠানিয়া,
        গাত কুদইন মেছাব ডাখইন
        গরু জবো করিলা !


        চাম্পা ভাই অখন আইলা
        রঙ্গীল কাগজ লইয়া,
        পথর খান্দায় সুতা বান্দইন
        রঙ্গীল কাগজ দিয়া !


        দামান আইলা যোহরের অখতো
        রাখছইন তানরে খাড়া,
        শালা মিয়ার ছাত্তি উল্টা
        ছালাম দিয়া গেলা !


        খলাগাছের গেইট আছে
        বান্দা আছে পিতা,
        পিতা কাটিয়া যাইবায় দামান
        দিবায় তুমি পাঁচ হাজার টেখা !


        টেলা ডেক্ষা করিয়া অখন
        দিলা দুই হাজার টেখা,
        ছালাম দিয়া দামান অখন
        আসনেতে বসলা !


        খাওয়া দাওয়া শেষে অখন
        দামান কইন্না মিলাইলা,
        চাম্পার হাতে মিঠাই খাবাইন
        দামান মিয়া হাসিঁলা !


        ফুলের মালা গলায় পড়ে
        দামান মিয়া পাসিলা,
        দামান্দের দুলাভাই  টেখা বাটইন
        শালা-শলি দেখিয়া !


        চাম্পা বেগম কান্দইন অখন
        মাইঝি-মইঝির গলায় ধরিয়া,
        বড় ভাইয়ে কোড়ও তুলে
        দিলা পালকিত উঠাইয়া !


        মেন্দি দেও গো চাম্পার হাতে
        খাইল চাম্পার বিয়া,
        খাইল আইবা দামান বেটা
        বৈরাতী সকল লইয়া !
          -----///----
        মোঃ রোকন আহমেদ।
        লণ্ডন থেকে।
        ০১ অগাস্ট ২০১৯ ইংরেজী।