যদি ঘাতক হয়ে আসো  তবে সরে দাঁড়াও!
আমি চাইনা শান বাঁধানো ঘাটে এক রত্তি রক্তের তোলপাড়
এখানে শাপলা শালুকের গোলাপী আভায়;
সোনালি মাছের কোলাহলে চাইনা শ্বাসকষ্টের আঁচড়।

অনেক কাজ বাকি………………..
এখনও হয়নি সময় মৃত্যুর সাথে আলিঙ্গন করার!
আমি চাইনা কাঁটার আঘাতে নুয়ে পড়ুক অশ্বথের ডাল;
আমি চাইনা বিশ্বাস ভঙ্গ করে হাসুক মফস্বলি ঠোঁট,
এখানে এখনও বাকি সময় ছোট ছোট ভাবনার বড় হবার স্বাদ!
কিছুটা সময় দিতেই হবে এই পরাবাস্তব শহরকে।

এখনও হাহাকার জড়ানো মুখগুলো ফুটপাতে অপাঠ্য চিৎকারে
প্রতিদিন মরছে, গুনছে আগত সবুজ বিশ্বাসের প্রশ্রয় পেতে!
যদি এমন আশ্বাস দিতে পারো তবে শুষে নাও সবটুকু তিক্ততা,
সুদীর্ঘ চুম্বনে, মাতাল বৃষ্টির ছোঁয়ায় মুছে দাও আড়মোড়া দেয়া
আমাদের সকরুণ দ্বন্দ্বের হামাগুড়ি ছাপ।

আর যদি ঘাতক হয়ে আসো তবে সরে দাঁড়াও!
আমি দেবনা মাথা নত হতে আমাদের প্রিয়তম অনুভূতিদের;
দেবনা কোন এক নির্জন বেরসিক হাত এসে ছুঁয়ে দিক ,
আমাদের মানবতার ছায়া বনবীথিতল ওষ্ঠের পল্লব!
যেখানে ছড়িয়ে আছে চন্দনের ক্ষেত,আছে অনাবিল শস্যের শুভ্রতা;
জোনাকির চুমকি মেখে কৃষ্ণজল যেখানে নাচে অতল জলের আহ্বানে।

যতই ভৈরবী সুর হারাক,যতই উচ্ছৃঙ্খল বাতাসে ওলোটপালট হোক!
আমাদের সদ্যোজাত   সজল অনুভূতি এই কুহক সময়ে;
তবুও আমাদের আকাঙ্ক্ষার ডানা সতত মিশে থাকবে
আকাশের অভ্রে ও আবীরে।

যদি ঘাতক হয়ে আসো তবে সরে দাঁড়াও!!