একটা ভুল বাক্য তছনছ করে দিতে পারে
পঞ্চইন্দ্রিয়ের সচল চলাচল!
ভেংগে দিতে পারে আঙ্গুলের ভাঁজে আঁকা
আগামীর কাব্যকথা।

কিছু প্রশ্ন আজীবন প্রশ্নই থেকে যায়
শুধু গভীরে রেখে যায় বিবশ বিবর!
কিছু সম্পর্কের হয়না সঠিক ব্যাকরণ
খোঁজে অন্ধকারে অনুমেয় আলোর তীব্রতা।

কিছু গল্প থাকে অসম্পূর্ণ, শূন্য থেকে শুরু
আবার শূন্যে দেয় পাড়ি!  
পাহাড়ের গায়ে বাঁধে কুয়াশার ঘর
রোদের কবলে ভাঙে তার মেলা।

কিছু পরিচিত শব্দ ভীড়ের মাঝেও ভীষন একা
শরৎ কথনে  লিখে চৈত্রের খরা!
অনুভূতির নদীপথে ভাসায় খড়কুটো
নিভাঁজ শাড়ির আঁচল ডুবে স্নানের জলে।