কথা ছিল বিজন বনে,
দেখা হবে সখির সনে ।
কিন্তু মোর পুড়া কপাল,
কেটে গেল সারা সকাল-
আসিনি সখির স্মরণে ।
শাওন মাসে ভরা নদী,
পরান কাঁদে নিরবধি ।
কাননের সকল ফুল,
আত্মক্ষোভে হয় ব্যকুল ।
ঝরে মেশে হায় প্লাবণে ।
বৃক্ষে জড়ানো গুল্ম-লতা,
যাচে সমাদর সঙ্গতা ।
বিচ্যুত ফল যত থাকে,
পরে রয় নদীর বাঁকে ।
তুলবে বলে প্রিয়জনে?


সে আসবে পথের ধারে,
মুগ্ধ চোখে দেখব তারে ।
কত কথাই কব বসে,
সেও বলবে মৃদু হেসে ।
ভয়ভীতি রবেনা মনে ।
প্রাণেতে প্রাণ বাঁধা রবে,
সতত পাব অনুভবে ।
ভব নদীর এলো স্রোতে,
ভেসে যাব একই সাথে ।
হারাবনা গর্জনে ।
মনের কথা মনে থাকে,
বাগদান কেউ কী রাখে?
দাঁড়িয়ে থাকি বনে একা,
মেলেনা যে সখির দেখা ।
কাটল দিন ক্ষণ গুনে ।


৩০/০৭/২০০৯ খ্রিস্টাব্দ
১৫ শ্রাবণ ১৪১৬ বঙ্গাব্দ