তুলতুলে এক মিষ্টি মেয়ে
আসল মায়ের কোলে,
সবার মুখে মধুর হাসি
আনন্দে মন দোলে।


নয়ণমণি ছোট্ট সোণা
ত্বন্নী নামে ডাকে,
আদর করে বিতুপা নাম
মামায় দিল তাকে।


স্নেহ মমতায় সবার মাঝে
বেড়ে উঠে সোণা মেয়ে,
স্বপ্নের রঙে স্বপ্ন রাঙাবে
একদিন বড় হয়ে।


জ্ঞানে গুণে ভরবে জীবন
জ্বালবে সুখের আলো,
সকলের প্রাণে প্রিয় হয়ে রবে
সকলের কাছে ভালো।


হঠাৎ সেদিন শনির দশায়
সবকিছু এলোমেলো,
জীবনটা নিথর নিষ্প্রাণ হয়ে
নামল আঁধার কালো।


মা-বাবা-ভাইয়ের বন্ধন ছিঁড়ে
চলে গেল পরলোকে,
সুখের সমুদ্র শুকিয়ে গেল
অসহ যাতনা শোকে।


স্বপ্নগুলো সব গড়াগড়ি করে
কেঁদে কেঁদে বেদনায়,
কোলাহল সব নির্বাক থেমে
নিয়তির আঙ্গিনায়।


ব্যথাতুর মনে বিধাতার পানে
করজোরে প্রার্থনা,
স্বর্গের মাঝে ঠাঁই দিতে তারে
একটু দয়া করুণা।
==============