প্রকাশ্য হেম থেকে' কাব্যগ্রন্থ থেকে সংকলিত

একদিন
কৌটায় করে নিয়ে যাব এই হেমন্তের দুপুর,
তোমার মতো
আয়নায় দাড়ানো মেঠোপথের চমক...
একদিন তোমার উঠোনের শিউলিগাছ হব,
ফুলের মতো মিছিল করে করে পাখির ডানায় উড়ে যাব মেঘের দেশ...


একদিন
খুব গরমেও তোমার দেওয়া শীতের কাপড় পড়ব,
গাঁয়ে গাঁয়ে যাব
কৌটায় করে নিয়ে যাব রোদ,
পড়ন্ত বিকেল থেকে একটা পানকৌড়ি নৌকা নিব,
শামুকের মতো খুব ডুব দেব, বুকে রবে একটা
হাওয়ার নদী...


একদিন
এই আকাশটা নিয়ে একটা ছবি আঁকব,
তোমাকে দেব
মাটির
প্রজাপতি,
খুব শখ একটা ঘাসফড়িং ধরব,
বিয়ে দেব পুতুল,
বকের মতো
পায়ের
সাঁতার কাটতে কাটতে যাব গহীন বালুচর...


একদিন
আমিও মানুষ হব,
না বিপ্লবী না প্রেমিক
খুব শখ কৌটায় করে নিয়ে যাব
এই
সংসার,
এক ভেন্না পাতার ঘর...
একদিন পথের মতো আগলে দাড়াব তোমার কবর
না মিছিল, না শ্লোগান
তোমাকে দেব শপথ
একদিন আমিও মানুষ হব, তোমাদের গাঁয়ে
শিশিরের মতো ঝরব, সবুজ ক্ষেতে হব এক কাকতাড়ুয়া বালক...