প্রতিটা মুহূর্ত নষ্ট হয়,
আমার অলসতায়।
প্রতিটা শব্দের মৃত্যু ঘটে,
আমার অনাগ্রহে।


আমি চেয়ে থাকি শূন্যে,
যেখানে স্বপ্নেরা বাসা বাঁধে।
আমার ঘুমেরা পরবাসী,
ছেড়া বালিসের অজুহাতে।


সবটুকু আলো কেড়ে নিয়ে-
নিজেকে শাস্তি দিই সংগোপনে।
হাতড়ে বেড়াই স্মৃতির সুদিন,
মন খারাপের মাঝরাতে।


গাড় নীল বেদনার স্রোত  আমার শিরায়,
থামবে কবে কে জানে!
আমার অসুখ খুব, তবু বেঁচে থাকি,
সেরে উঠার তীব্র  ভয়ে।