তোমার কথা মনে হলে
শরীরটা টান টান হয়ে ওঠে।
উত্তেজনায় ছটফট করে মন।
দুহাত তুলে সোচ্চারে বলি
বয়স লেগেছে, দেহ মনে
হামা  দেয় যৌবন — ।
তোমাকে দুহাতে আঁকড়ে ধরি
মুখ রাখি তোমার নরম বুকে
ভালোবাসতে চাই ছুঁয়ে শুঁকে।
হাত দিয়ে জড়িয়ে ধরি তোমার
কটিদেশ—অনুভবে মুগ্ধ হই।


জন্মের অতীতে আমি চেয়েছি তোমায়
আমি খুঁজেছি তোমায় সহস্র বছর ধরে।
পৃথিবীর প্রান্তর থেকে গ্রহের প্রান্তরে।
আমার সামনে যা কিছু দেখি
দূর অনন্তে –
তোমাকে দেখি শুধু স্বপ্নের বিবরে।
রাত গভীর হলে চলতো শুধু মান-অভিমান।
সময়ের গা বেয়ে এক অদ্ভুত নেশায়
রমনীর আকর্ষণ বোধ করতাম।
প্রতিশ্রুতি ক্ষয় করে শেষ রাত অবধি
নিংড়ে নিতাম চাঁদের নির্যাস।