মানব মুখের মাতৃভাষা
করলো যারা হরণ,
নষ্ট আত্মার ভ্রষ্ট মানুষ
এ জগতের দুশমন!


স্যাঙাত হয়ে কাছে এসে
করলো প্রতারণা,
দুঃখ পাবার কারণ ছিল
কষ্ট আর বঞ্চনা!


মাতৃ মুখের মধুর ভাষা
করলো কয়েদ-বন্দী,
বাংলা মায়ের সন্তানেরা
করলো না রে সন্ধি।


ছড়িয়েছিল দ্রোহের আগুন
সকল গৃহের কোণে,
উঠলো ফুঁসে যুবক-তরুণ
খুন ঝরালো রণে।


মুক্তি পেল মায়ের ভাষা
ধন্য হলো বাঙ্গালী,
বিশ্ব মাঝে উঠলো হেসে
লাল-সবুজ রংতুলি।