তখনও চারিদিকে নিথর প্রকৃতি
সুবহে-সাদিকের পালা শুরু
দীপ জেলে ফজরের আহবান,
আসসালাতু-খাইরুম্-মিনান্নাউম
ডেকে যায় মুয়াজ্জিন দাঁড়িয়ে মিনারে
কি যে যাদু মাখা, মায়াবী কণ্ঠের আজান
অপূর্ব সেই সূরের দোলায়, মন ছুঁয়ে যায়
উঠো মুমিন, ঘুমিও না আর।


অমনি সুখের শয্যা ছেড়ে
সাড়া দিয়ে এক আল্লাহর ডাকে
অতি ব্যস্ত পবিত্র হয়ে
মুমিন ছুটে চলে, প্রিয় সেই মসজিদে
যেখানে জমায়েত সকল মুসলিম, ভ্রাতৃ-বন্ধনে
পড়বে জামাতে ফজরের নামাজ
পূরুষের নামাজ মসজিদে হবে, হুকুম নবীজীর
আরো আছে ছাওয়াব-সাতাশ গুন
যদি সেটা হয় জামাতে নামাজ
মুমিন কখনও ছাড়েনা জামাত, আসুক শত বিপদ
ফজরের নামাজ পড়ে যেজন, প্রত্যহ সময় মত
রুজির কষ্ট ঘুচে গিয়ে, দূর হয় অভাব যত
এমনি করে জোহর-আসর-মাগরিব আর এশা
পড়তে হবে তাহাজ্জত, তবেই ক্ষমার আশা ।।