আজ থেকে ছ’মাস আগে বাংলাদেশের প্রথম আলো পত্রিকার দূর পরবাস পাতায় একটি কবিতা পোস্ট করতে গিয়ে কানাডা থেকে পোস্ট করা একটি কবিতা পড়ার সৌভাগ্য হয়। করুণ দৃশ্যের দারুণ চিত্রায়ন জীবনমুখী কবিতাটি পাঠ করতে করতে আমার অশ্রু যেন অবাধ্য হয়ে ঝরতে শুরু করলো। অন্তরের তীব্র্র আলোড়নের বহিপ্রকাশ লুকানোর চেষ্টায় চেয়ারটি ঘুরিয়ে বসলাম কিন্তু উদ্দেশ্য সফল হলো না। পেছন থেকে হাজব্যান্ড বলে উঠলো “চেয়ার ঘুরেছে কিন্তু তোমার অশ্রু এখনও সোজা লাইনেই গড়াচ্ছে” ভেজা কন্ঠে মুচকি হেসে প্রশ্ন করলাম ‘তুমি দেখলে কি করে’? হাসি কান্নার ছোট এই পর্বের মধ্য দিয়েই বাংলা কবিতার আসরে আমার পরোক্ষ প্রবেশ। কারন ঐ দিনেই আরো কিছু কবিতা পড়ার ইচ্ছা জাগলো এবং কিওয়ার্ড ‘বাংলা কবিতা’ দিয়ে গুগল সার্চ করা মাত্রই কবি ও কবিতার এ ওয়েবসাইটটি পেয়ে যাই।


কোন একটি আলোচনার কমেন্ট বক্সে প্রিয় কবি সঞ্জয় কর্মকার লিখেছিলেন “আসরটি একটি পরিবারের মতো” আজ আমারও তাই মনে হয়। ব্যস্ততার কারণে আসরে নিয়মিত হতে পারছি না তবুও এ আসরের প্র্রতি একটি দায়িত্ববোধ জন্মেছে নিজের মধ্যে। সবাই ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন এ প্রত্যাশা রেখে আজ এখানেই।