তুমি  অনেক  দূর  যেতে পারো                                           তোমার  অস্থি মজ্জা করটিতে                                          দূরান্ত যৌবন । তুমি মেঘ  বালিকা ।                               কবিতার বাস্তুভিটে উঠোন স্বরলিপি                               ভাসিয়ে দিলে ! তুমি সন্ধ্যা তারা হলে             আমি যেতেই পারি নক্ষত্রের রাতে                                  আমার অশ্রু , মুছে দিবে সীমান্তের চিহ্ন ।              



      


দিগন্তরেখা ঘিরে মেঘের জটলা                                          না । বৃষ্টি হবে না                                                            সূর্য মুখী , আমি তোমাকে চাই ।                        
  কতটা দূরে যেতে পারো !  সূর্যের                                               দেশে । মৃত্তিকার অতলে                                 সেখানভী কম্পমাস আঁধারি যেখানে।              




            
মেঘে মেঘে আবিষ্ট আলিংঙ্গন । তবু  বৃষ্টি নেই ।
                            আমি কবি রুমী