অদ্ভুত সুন্দর তুই!
নিটোল গালে টোল পড়ে হাসলেই।
ডান চোখের কাছটায় নাকে চমৎকার তিল, বিউটি স্পট।
ঠোঁট যেন টসটসে কমলার কোয়া।
গ্রীবা বাঁকিয়ে যখন তাকিয়ে দেখিস্ চারদিক,
মনে হয় যেন রাজহংসী ডানা মেলবে এখুনি;
ভেসে বেড়াবে পদ্মপুকুরে।
পদ্মপাতার জলের মতোই জ্বলজ্বল করে তোর নাকের ডগার ঘাম, গড়িয়ে পড়বে বুঝি !
কপালের মাঝখানে ছোট্ট বিন্দুর মতো গোলাপী  টিপ।
গলায় পড়েছিস্ গোলাপী মুক্তোর মালা, কানে মুক্তোর দুল, হাতে মুক্তো বসানো সোনার চুরি।
সুন্দর মানিয়েছে তোকে সদ্য ভাজভাঙা টাঙ্গাইল শাড়িতে।
ম্যাচিং ব্লাউজ, চুলের ক্লিপ, ব্রুচপিন।
বেলীফুলের মিষ্টি ঘ্রাণ।
মিডিয়াম হিল জুতোও পড়েছিস্ শাড়ির সাথে ম্যাচ করে।
রূপোর পায়েল দুই পায়ে।


কার জন্যে সেজেগুজে অপেক্ষা করছিস্ এই ভরা যৌবনে?
আমাকে সাথে নিবি?
আমিও পাজামা-পাঞ্জাবি পরে কড়া সেন্ট মেখে তোরই অপেক্ষায়।
বড় পর্দায় ছবি দেখবি? লাভ স্টোরী?
পাশাপাশি বসে ভাগ করে নেবো উষ্ণতা।


রচনাকাল: ঢাকা, ১২ জুন ২০১৯