সহস্র, অযুত-নিযুত, লক্ষ-কোটি
অগণিত আতঙ্কে মোড়ানো পৃথিবীর শরীর
আলোড়ন তুলে দুমড়ে-মুচড়ে ফেলা পৃথিবীর ভিত
এক শব্দেই সবাই যেন এক কাতারে দাঁড়িয়ে
ভিক্ষুক হতে সেরা শীর্ষ ধনকুবের
সাধারণ হতে রাষ্ট্রের কর্ণধার
শীর্ণকায় ক্ষীণবল হতে চূড়ান্ত দাপুটে ক্ষমতাধর
বিনম্র নতজানু এক শব্দে কুপোকাত –
’অসহায়’ নিদারুণ অসহায়ত্ব …
মুখে মুখে মাস্ক, সরে যাও, দূরে থাকো
নিজেকে রক্ষা করো
কোয়ারেন্টাইন, আইসোলেশন
স্বজন, হৃৎপিণ্ডের অংশীদারের
অন্তরে খামচি দেয়া ভয়ানক সকাতর ছটফটনি
থার্মোমিটার বিদীর্ণ করে আকাশ-তুঙ্গে উঠে যায় অনুভূতির পারদ
মাঝখানে অদৃশ্য আতঙ্কের দেয়াল
কাছে যাওয়া যায় না
একটুখানি ছোঁয়া যায় না
মুহূর্তের সান্তনার কথা, তাও যায় না বলা
দূরে গিয়ে নিজে বাঁচো, কেবল নিজেকে বাঁচাও
যেন কেয়ামতের ময়দানে ভয়ঙ্কর পেরেশানি
সকলের মুখে - ইয়া নফসি, ইয়া নফসি …


ফিরোজ, মগবাজার, ২৭/০৩/২০২০