(মুজিব বর্ষ উপলক্ষে পিতার প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি-৫)


পঁচাত্তরের পনেরোই আগস্ট
সকাল বেলা বেতারে
কি শোনাইলো! সারা বাংলা
কান্দে শোকে আহারে।


বিপথগামী কুলাঙ্গারের দল
কাইরা নিল জাতির পিতা,
জাতির মনোবল।


মায়ের, ভাইয়ের লাশের সাথে
মেহেদী রাঙ্গা বধু রে
কি শোনাইলো! সারা বাংলা
কান্দে শোকে আহারে।


ছোট্ট শিশু রাসেলের কান্দন
পিশাচ দলের মন গলেনি
শোনিয়া বারণ।


সোনার বাংলা শ্মশান হইলো
শোকে আত্মহারা রে
কি শোনাইলো! সারা বাংলা
কান্দে শোকে আহারে।


ঘাতকের দল বইসা ক্ষমতায়
খুনির বিচার করবে না কয়
দুঃখে পরাণ যায়।


দিল জাতির পিতার কন্যাদেরে
দেশে আসতে বাধা রে
কি শোনাইলো! সারা বাংলা
কান্দে শোকে আহারে।


নিদারুণ যন্ত্রণায় দুইটি বোন
বিদেশের মাটিতে কান্দে
হারাইয়া স্বজন।


তোমরা কে শুনেছ এমন কথা
খুনের বিচার হয়না রে
কি শোনাইলো! সারা বাংলা
কান্দে শোকে আহারে।


দেশের শত্রু বইসা ক্ষমতায়
জীবন দিয়া কেনা বাংলার
রক্ত চুইষা খায়।


ছিঁড়ে ফেলে সব কঠিন বাধা
কোটি জনতার প্রাণ
এই বাংলায় আসিলো ফিরে
বাংলাদেশের জান।


শক্ত হাতে ধরিয়া দেশের হাল
দেখিয়ে দিল বিশ্বটাকে
সবুজের বুকে লাল।


শোকের আঘাত শক্তি কইরা
সোনার বাংলা গড়েরে
হিংসায় জ্বলে নিন্দুকেরা
কি চমৎকার আহারে।
*****


রচনাকাল: ১৪ আগস্ট ২০২১