আবার যুদ্ধ হবে মানুষে-মানুষে,
রক্ত ঝরিবে, ঘাম ঝরিবে, আগুনে জ্বলিবে
মিলিয়ন মিলিয়ন শরীর, ঘাসের মত_
দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের মত এটম ফাটিবে
হিটলারের মত শাসক থাকিবে, তার চেয়েও ভয়ংকর।
আবার যুদ্ধ হবে মানুষে-মানুষে
তখন আর দেশে দেশে যুদ্ধ হবে না_
যুদ্ধ হবে রক্তে-রক্তে, মাংসে-মাংসে, শরীরে-শরীরে
লাশের স্তুপ, লাশের গন্ধ, জীবিত মানুষও লাশ হবে
নিজেকে বাঁচাবে—ছদ্মবেশী লাশ।
আবার যুদ্ধ হবে মানুষে-মানুষে
যেখানে সবি মানুষ রূপি অমানুষ থাকিবে!
সবাই বলিবে আমি মানুষ, আমি মানুষ
মানুষে-মানুষের রক্ত চুষিবে, খুবলে খুবলে মাংস খাবে
চোখ থাকিবে না, সমাজ থাকিবে না,
যুদ্ধ করিবে ক্ষমতা নিয়ে, শক্তি নিয়ে,
ভাত নিয়ে, সততা নিয়ে_
যুদ্ধ করিবে চরিত্র নিয়ে, রুক্ষতার শক্তি নিয়ে।
আবার যুদ্ধ হবে মানুষে-মানুষে
রূপ—সৌন্দর্য্য, অহংকার, লোভ, ধৈর্য্য নিয়ে
ঘরে ঘরে যুদ্ধ হবে, রুমে রুমে যুদ্ধ হবে
যুদ্ধ হবে রক্তে রক্তে, চোখে চোখে।
আবার যুদ্ধ হবে মানুষে-মানুষে
নারীর নগ্ন শরীর নিয়ে, ভালোবাসা নিয়ে
কবর, চিতা, শ্মশান নিয়ে, মৃত্যুর যন্ত্রণা নিয়ে
সখ, ইচ্ছা, আকাঙ্ক্ষা, সুখ, আনন্দ নিয়ে
আবার যুদ্ধ হবে মাংস,রক্ত, লাশ নিয়ে।


আবার যুদ্ধ হবে মানুষে-মানুষে
ভাষা, শব্দ, অক্ষর, বর্ণ, নিয়ে
মাটি, পানি, গাছ, পাখি, প্রকৃতি, সৌন্দর্য্য নিয়ে
আল্লাহ, ঈশ্বর, গড, নিয়ে
আবার যুদ্ধ হবে দুঃখ, যন্ত্রণা, বেদনা, কষ্ট নিয়ে।
মানুষ সে দিন মানুষ থাকিবে না!
মানুষ হবে মাটি, পানি—
মানুষ সে দিন যুদ্ধ করিবে নিজেদের সাথে
রক্তে রক্তে, মাংসে মাংসে, শরীরে শরীরে।
আবার যুদ্ধ হবে মানুষে-মানুষে
হিংসা, বিদ্বেষ, অহংকার, লাল চোখ নিয়ে
বুদ্ধি, শিক্ষা, বই, কলম, খাতা নিয়ে
স্কুল, কলেজ, ভার্সিটি, মাদ্রাসা, নিয়ে
আবার যুদ্ধ হবে নারী, লিঙ্গ, স্তন, যৌনাঙ্গ নিয়ে।


আবার যুদ্ধ হবে মানুষে-মানুষে
স্বপ্ন, আশা, ভালোবাসা, প্রেম-প্রেমিকা নিয়ে
প্রেমিকে-প্রেমিকের মাঝে যুদ্ধ হবে_
ক্ষত বিক্ষত হবে শরীর, মন, আত্মা,
আবার যুদ্ধ হবে ফুল নিয়ে, আলো নিয়ে, শরীর নিয়ে
ঘরে ঘরে খুন হবে মানুষ, মানুষের হাতে
লাশ নিজেরাই মাটি চাপা দিবে ঘরের ভিতরেই
আবার যুদ্ধ হবে মানুষে-মানুষে
আলো, বাতাস, অন্ধকার নিয়ে
নারীর শীষ নিয়ে, নারীর কাজ, চরিত্র নিয়ে
নারীর কথা, চোখ, ধর্ম, বিলাসিতা, হাসি নিয়ে।
আবার যুদ্ধ হবে ক্লেশ, মন, দেহ, চুল
অন্ধ, বন্ধ, নারীর নাক, নিতম্ব, উরু, পা নিয়ে
আবার যুদ্ধ হবে পুরুষের লিঙ্গ নিয়ে।


আবার যুদ্ধ হবে মানুষে-মানুষে
ঘুম নিয়ে, শোয়া নিয়ে, চোখ বন্ধ নিয়ে,
বিছানা, ঘর, খাট, নকশি কাঁথা, কম্বল নিয়ে
আবার যুদ্ধ হবে অহেতুক কারণ নিয়ে
হাঁটা, বসা, গল্প করা, হাসি, কবিতা নিয়ে।
আবার যুদ্ধ হবে এলা থাকা নিয়ে
মিলেমিশে, লুকিয়ে, চুপি থাকার কারণে
আবার যুদ্ধ হবে মানুষে-মানুষে
নারীর সাথে ঘুমালে, নারীর সাথে থাকলে
নারীর চোখে তাকালে, আবার না তাকালেও যুদ্ধ হবে
আবার যুদ্ধ হবে, যুদ্ধ হবে মানুষে-মানুষে