আমি মানুষ; সত্যের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে চাই
বিবেক-বুদ্ধি অবসরে যাওয়াটা কাম্য নই।
আমি বুঝি; বিষের বাটি, মধুর হাঁড়ি
কোন খানে জয়-ভয়, নিজের বসত বাড়ি।


দখল, জুলুম, অন্যায়নীতি, বেঈমানি, দুষমনি
দুর্বল জনে বাকরুদ্ধ, জোরের হাতে অবনী?
সুখ খোঁজে, চোখ বুজে, রক্ত চুষে আড়ালে
ঘরণীর বোবা চিৎকার, দুর্নীতির ভেড়া জালে।


ঘর দখলে, বল ফসলে, দল আসে হাঁকি-হাঁকি
বীরত্ব বাহু নাইকো ঘরে, অবলার চোখ দেখি।  
যা ছিলো সব লুট করেছে, মেরে-মেরে দেহ ক্ষয়
সব জনে দেখে তামাশা, প্রতীবাদ রয়েছে বেবোলা।


বাহু দলের জোর দেখিয়ে ভুলে গেলি সত্য?
কোমলের ঘরে বিষাদ দিলি, ভুল চোখে মত্ত।
মাটি থেকে লাশ উঠিয়ে নিবি, আত্মার হবে বাস
মনুষ্যত্ব হারিয়ে গেছে, বিবেকের সর্বনাশ।


ঘর ভেঙ্গেছে, মারে দিলে, ঠাঁই হবে না বিটায়
দুঃখের সময় কেহু দেখেনা, আগে-পরে হায়-হায়।
জোর দেখিয়ে, জুলুম করে, কি নিয়েছিস কেঁড়ে?
ঐ পারেতে বিচার হবে , মরতে হবে তোরে।