,                     বাদামী রঙের কাগজ গায়ে, শব্দের বিন্যাস
                      কাব্য শতদলে মনের কথা, করেছেন চাষ।।  


১। খুবই আনন্দের সংবাদ। "কাব্য শতদল" গ্রন্থখানি সারাদেশে একযোগে, প্রকাশিত হল; "দাঁড়িকমা প্রকাশনী" ব্যানারে অমর ২১শে  গ্রন্থমেলায়,স্টল নং ৩৮৮-৩৮৯ ও লিটল ম্যাগ চত্বর স্টল নং ১০ এবং খুলনা বইমেলায় স্টল নং ৭৪ আবার ৭ তারিখ থেকে সিলেট ও ১৪ তারিখ থেকে চট্টগ্রামের বইমেলায় পাওয়া যাবে ।  গ্রন্থটি  দেখেছে আলোর মুখ। ফুটেছে  ভালো লাগার সুবাস  সর্বত্রই ।    


   আপনারা  যারা বইটি  সংগ্রহ করতে  ইচ্ছুক, তাঁরা তাড়াতাড়ি বইমেলাই আসুন। অথবা  অনুগ্রহ করে  এখানে ঠিকানা প্রদান করুণ । কিংবা প্রকাশক আব্দুল হাকিম নাহিদ ভাইয়ের সাথে  যোগাযোগ করুণ মুঠোফোনের  নাম্বারে ০০৮৮০১৮৪০৬৭৫৪২৭ ।  


২।আমার আরো দুটি  সুখবরঃ-  "মিথিলা" উপন্যাসের কেন্দ্রিয়  চরিত্র মিথিলা। গ্রামের  সহজ সরল একটা মেয়ে। অথচ আমাদের  চারিপাশের  দুষ্কৃতিকারিদের কবলে পড়ে নিজের  ঘনিষ্ঠ বান্ধবীকে যখন রাতের আঁধারে তুলে নিয়ে  ধর্ষণ করে  হত্যা করে  সুতাহীন  অবস্থায় ফেলে রেখে গিয়েছিলো ক্ষমতাধারীরা তখন  মিথিলা এক প্রতিবাদী নারী। কিন্তু  সমাজের  প্রভাবশালীদের  চাপে পরেও  চুপ করে  থাকেনি, বান্ধবীর মৃত আত্নাকে ধারণ করে  সাজা দিয়েছে, সকল অপরাধীদের। এমনিভাবে গড়ে উঠেছে আমার "মিথিলা" নামক উপন্যাসটি।  ভৌতিক উপন্যাসটি  পাওয়া  যাচ্ছে - স্টল নং ৪০৪ এবং ৪০৫ "নন্দিতা প্রকাশনীতে।  


৩। অন্যদিকে  "মিথিলা" যখন "নন্দিতা প্রকাশনী'তে পাঠকের  চোখে চোখে ভাসছে,  তখন "তপু" নামক উপন্যাসটি সেজেছে নতুন সাজে "দাঁড়িকমা প্রকাশনী'তে।" ৯ ফর্মায় সাজানো উপন্যাসটিতে   কেন্দ্রিয় চরিত্র "তপু" তপু আমাদের  সমাজের  একটা বাস্তব  চরিত্র। যার প্রেমিকা অদিতিকে নিজের  চোখের  সামনে অন্যের বউ সাজতে  দেখেছে চোখের  অশ্রু ভাসিয়ে। সাজিয়ে দিয়েছে তাকে  ত্যাগী প্রেম দিয়ে।  ধর্মের দেয়াল যখন 'তপু'র' সামনে এসে হাজির হলো তখন সে যেন হতভম্ভ। কিছু পাওয়া- কিছু  না পাওয়া-  এমনি  অনেক নাটকীয়তায় উপন্যাসটি সেজেছে ৯ ফর্মার ৮০ গ্রাম কাগজে ।    


"তপু'  পাওয়া যাবে সারাদেশে একযুগে, প্রকাশনায়; "দাঁড়িকমা প্রকাশনী" ব্যানারে অমর ২১শে  গ্রন্থমেলায়,স্টল নং ৩৮৮-৩৮৯ ও লিটল ম্যাগ চত্বর স্টল নং ১০ এবং খুলনা বইমেলায় স্টল নং ৭৪ আবার ৭ তারিখ থেকে সিলেট ও ১৪ তারিখ থেকে চট্টগ্রামের বইমেলায়।  সবায়কে বইগুলো সংগ্রহ করার  জন্য অনুরোধ করছি।  


কোলকাতা পাঠকদের জন্য সুখবর- যারা বইগুলো  পেতে  ইচ্ছুক অনুগ্রহ করে ঠিকানা এখানে প্রদান করুন। কিংবা ইমেল করতে  পারেন [email protected]  চেষ্টা করবো  মেলা চলাকালীন সময়ের   মধ্যে হতান্তর করার। । ধন্যবাদ সবায়কে।