উষা লগ্নের প্রস্ফুটিত পদ্ম সকাল
ক্ষণকালের সে সুখে বিঁধিছে অকাল।
সবিতার তীব্র তেজময় দ্বি-প্রহর
কলি বাঁধে সে পূণঃ সুখ পেতে আসর।
প্রতিকূল বাঁধায় রণ পূর্ণ্য বৈকাল
বড় অভিলাসী সে বাঁচিবে চিরকাল।
ঘনিয়াছে সারা গগনে পূর্ণ্য সায়াহ্ন
পূণঃ সকাল পাবার পথ নাহি অন্য।
থাকিতে দেহে প্রাণ না মান পরাধীন
কেমনে টিকিবে তুমি মৃত্যুর অধীন।
চার যুগ একে একে দিয়াছে যে পাড়ি
তোমার যাবার সময় হয়েছে জারি।
এবাক্য থাকিতে তব অন্তরের রন্ধ্রে
প্রাণ চাও কবে তুমি পূণঃ কোন রাজ্যে?
★★★চতূর্দশপদী সংকলনঃ
"অন্তকীর্তি" কাব্যগ্রন্থের অন্তর্গত।