নারী রূপে জগৎ প্রাণ সঞ্চারী
সভ্যতার শৃঙ্খল সত্তা,
গরীয়সী নারী।
বিচিত্র গুণে গুণার্ন্বিত, ত্রিরূপ সমন্ধী
কখনো প্রেমিকা-সহধরা-স্নেহময়ী,
সত্তাধারী সন্ধি।
নিত্য গর্ভে সবাই ছিল ঘুমি
কাল প্রভাতে ভাঙ্গল নিদ্রা,
মাতৃকোল চুমি।
হাস খেল দিবা-নিশি, মাতৃস্নেহে তুমি
সমগ্র জগৎ নারী,প্রকৃতি নারী,
নারী জম্মভূমি।
লজ্জার বশ, ধৈর্য্যের বাঁধা আবরন
ত্যাগ তিতিক্ষায় আত্ম অবিচল,
নারী আমরণ।
সভ্যতার শুভাকাঙ্কী,আদর্শ আধার
নারী-গড়া বিশ্ব নগরী,
সভ্য সমাচার।
পরাজয়েরর হেতু, বিজয়ের হিত
শৃঙ্খল ধরা শান্তির সার,
মহীয়সী ভিত।
ধৈর্য্য লজ্জার যেক্ষণে লয়-মহাত্বরণ
পশুত্ব আবেগে নারী-নরে সমভাব,
ভূ-লয় ধারন।


---"অন্তকীর্তি" কাব্যগ্রন্থের অন্তর্গত।
(প্রথম প্রকাশ - ২১শে বইমেলা ২০১৬)