ন্যায়বিচার ও আইনের শাসন যদি সবাই মেনে নিত,
বাউল কবির স্বপ্নের দেশটি হতো, স্বর্গে পরিণত।


থাকতো না কারো হিংসা বিদ্বেষ একে অন্যের প্রতি,
জাগ্রত হতো ভ্রাতৃত্ববোধ, বেড়ে যেতো সম্প্রীতি।


সুপথ পেতে সচেতন মহলকে, ধরতে হবে মসি,
লাগামহীনতা বন্ধ করে, টানতে হবে রশি।


আইনকে যারা নেয় না মেনে, থাকেনা তাদের ভয়,
নিজেকে তারা শাহানশাহ্ ভাবে, যা বলে তাই হয়।


লোক চোখে যা মন্দ কাজ, তার করতে হবে বিরোধিতা,
সে সব অন্যায় কাজে যেন কেউ, না করেন সহযোগিতা।


পুলিশ যখন আসামী ধরে জেলখানাতে রাখে,
অপরাধকারী বের হয়ে আসে আইনের দুর্বলতার ফাঁকে।


আইনকে সংশোধন করে যদি, এমন আইনটি হতো,
জেলে-ই তাদের জীবন কাটবে অপরাধী যত।


জনগণের সেবায় যারা হবেন, জন প্রতিনিধি,
তাদের শিক্ষা-দীক্ষার ব্যাপারে যদি থাকতো কোনো বিধি!


সুনির্দিষ্ট শিক্ষার যোগ্যতা থাকলে তাদের মাঝে,
কর্মের প্রভাব ছড়িয়ে পড়ত তৃণমূল সমাজে।


সমাজ যদি পরিবর্তন হয়, পরিবর্তন হবে দেশ,
সত্যই একদিন গড়ে উঠবে স্বর্গের বাংলাদেশ।


                        ---সমাপ্ত---
                    (রচনাকালঃ-১৯/০৪/২০১৯)