বাড়িটা পড়েই আছে খালি,
একতলা দোতলা ঘর ছখানা,
যত্নে কেনা আসবাবে ভরা,
থাকার লোক পাওয়া যায়না।


দুই ছেলে দুজনেই বাইরে,
অন্য রাজ্যে তারা থাকে,
জমাটি সংসার তাদের এখন,
ফোনে মাঝেমাঝে খোঁজ রাখে।


বার্ধক্য এসেছে এখন দুজনেরই,
কোনক্রমে দিন কেটে যায়,
ছেলেদের কথা মনে হলে,
অশ্রু ঝরে নীরব ব্যাথায়।


যদি থাকতো একটা মেয়ে,
বাড়ির কাছেতে বিয়ে দিত,
সুখ দুঃখের গল্প নিয়ে,
দুবেলা এসে পাশে থাকতো।


একথা প্রায় ভাবে দুজনে,
নিভৃতে নীরবে আপন মনে,
তবু তারা জলভরা চোখে,
ছেলেদের আসার দিন গোনে।