ভালোবাসার মহাকাব্যে হিমেল বাতাসের চোরা স্রোত
শিশির ভেজা ঘাসের মত ঝলমল করে প্রেমের আকুতি
হৃদয়ের গোপন অঙ্গীকারে লেখা হয় ভালোবাসার গান।


প্রজাপতির দল ফুলে ফুলে মধু সংগ্রহ করে নেশার মত
দুটি হৃদয়ের স্পর্শে সোহাগের নদী বয়ে চলে অবিরত –
ভালোবাসায় রাগ অনুরাগের ছোঁয়া চিরকালীন...


অভিমানী মন খুঁজে বেড়ায় তার প্রেমিককে -
শীতের নরম রোদ্দুরে হৃদয়টা হয়ে ওঠে রঙবাহারী ফুলের মত
প্রজাপতির রঙিন পাখনার মত হারিয়ে যায় ভালোবাসার ভেলায়।


চপল হরিণীর মত ছুটে বেড়ায় হৃদয়ের প্রাঙ্গণ –
ভালোবাসার মহাকাব্যে লেখা হয় অনাগত বসন্তের আবাহন
একই সুরে গাঁথা হয় দুটি প্রেমিক প্রেমিকার অচিন সুখ।


ফাগুন বাতাসের প্রতীক্ষায় প্রহর গোনে দুটি হৃদয়
ভালোবাসার ওম থেকে জন্ম নেয় আর এক নতুন সভ্যতা
যুগ যুগ ধরে এভাবেই চলে আসছে ভালোবাসার অমর প্রেম কাব্য।


     ******


    
রচনাকাল – ০১/১২/২০২১