বেসামাল হলে চলবে না এই ঠুনকো জীবনে
অস্থির রোদ্দুর গায়ে মেখে হাঁটবো চিরকাল
শিশিরের ভেজা শরীর থেকে গন্ধ নেব বুক ভরে।


ঠুনকো জীবন এই আছে এই নেই -
হাত বাড়িয়ে ধরতে চেওনা আকাশের মরমী চাঁদ
জ্যোৎস্নার রঙ বুকে জড়িয়ে ঘুমিয়ে পড়ো শান্তিতে।


রাতের অন্ধকারে জোনাকির আলোতে পথ ভরে ওঠে
বেহিসেবি জীবন থেকে ক্রমশ দূরে সরে যায় ভালোবাসা
ওষ্ঠের অধিকার হারিয়ে খুঁজে বেড়ায় মায়াবী আলো।


পাহাড়ি ঝর্নার মত মানুষ উচ্ছল ভাবে বাঁচতে চায়
মনের কোনায় লুকিয়ে থাকে একটা ভালোবাসার ঘর
বাবুই পাখির বাসার মত অতো সুনিপুণ না হলেও চলবে।


যতই ঝড় ঝপটা আসুক না ঠুনকো জীবনে -
মানুষ তবুও বেঁচে থাকে আধমরা চিতাকাঠ হয়ে
চোখের কোনায় আজও লেগে আছে এক টুকরো রোদ্দুরের ছোঁয়া।


               *****


রচনাকাল – ০৪/০৯/২০২০