হেমন্তে যেন এখনি শীতের গন্ধ
কুয়াশা সকালে, বিকেলে।


যাদের নিয়ে হেসে খেলে কেটেছে সকাল
এতখানি কাল,
বিকেলে তারাই কুয়াশা হলে বুঝি
সেই সব বন্ধুরাও
একে একে ছেড়ে যেতে চায়,
এই অবেলায়।
জগতে এ বড় দুঃসময় !
এ সময়ে, ফিসফিসে হাওয়াকে যত বলো
খসিয়ে নিয়ে যাবে
শেষপাতাটিও,
কৃষকেরা ত্বরা এসে কেটে নেবে ধান;
কারো ভয়ে ত্রস্ত-দিগন্তও যেন শিরশিরে,সুনসান।


শেফালিকা ফুল,নবান্নের সাজ ফেলে
অস্ফুট শিশির জমে ক্রমে গাছের কোটরে।
বুক-ভাঙানিয়া ভোরে একলা চাদরে
উঁকি মেরে দেখি,
ভেজা, ভেজা পথ ধরে
কুয়াশায়
কেউ স্থির হেঁটে আসে জীবনের এ প্রান্তে,
অমোঘ হেমন্তে ।