রাজার ছাতার নীচে যে কবিতারা বেড়ে ওঠে
কখনো কি হেঁটেছে রোদ্দুরে,
বাঁধানো সড়ক ছেড়ে হেঁটে গেছে অলিতে গলিতে
ক্ষুধাতে,তেষ্টাতে ?


ভাবনার মাঠে ঘাটে
কত শব্দ- ফুল ফুটে আছে :
নাম- না- জানা,অন্ত্যজ,অচেনা।
পূজারী পূজার ছলে চেনা ফুল তোলে,
নিরাপদ ছোঁড়া ঢিলে
আন্দোলন গুণে যায় জলে।
মাঠে ফোটা ঘাস ফুল
প্রতিদিন মরণকে ছুঁয়ে
কিভাবে যে বেঁচে থাকে জীবন-জঙ্গলে
কেউ কেউ জানে ;
তাদের কথা লেখে তারা
শব্দ,ভাষা ভেঙ্গে নতুন আঙ্গিকে ।


জেনো,দুয়োরাণী কবিতারা
মানুষের জন্যে যারা
কালে কালে প্রচারে, থেকেছে আড়ালে।