লোকটা হাঁটছিল;অনেক লোকের দলে
সেও হাঁটছিল।
তার আর কোন উপায় ছিল না,এছাড়া ।
ছেঁড়া চটি পায়ে,শীর্ণ দেহে
নিরন্ন লোকটা হেঁটে যাচ্ছিল।
হঠাৎ,পিছন থেকে কোন লরি ধাক্কা মেরে
তার হাঁটা শেষ করে দিল।
দু' হাত দিয়ে সামলানো মাথার বাক্সটা
হাট করে ছিটকে পড়ল রাস্তায়
ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ল যন্ত্রণাগুলো,
ছেঁড়া চটি আরো ছিঁড়ে পড়ে রইল।


হাঁটতে হাঁটতে সে যে কতদূর যেতে পারে
তার আর জানা হল না।


অথচ,আরেকটু হাঁটলে সে পৌঁছে যেতে পারত স্বদেশে;পথ চিনে আরেকটু হাঁটলেই,
কান্নাগুলো ধরে রাখলেই..


তার আর জানা হল না,আরেকটু হাঁটলেই
অপমান,অবিচার শেষে অনেক পায়ের চাপে
পিষে যেত তাবৎ প্রহরা।