তোমার জন্যে এক পাহাড় মিথ্যে কবিতা  রাখা
তুমি সহজেই ডিঙিয়ে যেতে পার ;
কবিতার উপরে চাঁদের আলো
রজনীগন্ধার মতো বেছে তুমি তা খোঁপায় গোঁজ।
তুমি ফুৎকারে উড়িয়ে দিয়ে যত বাহুবল
সহজ ভ্রু-ধনুতে জিতে নিতে পার
যাবৎ যুদ্ধ।
তবু,তোমার প্রতীক্ষা
সানন্দ-শিকার হতে চেয়ে অনন্তকাল...
একটা পৃথিবী থমকে দাঁড়ায়
শুধু তোমার জন্যে,
অথচ,একটু পৃথিবী চেয়ে
তোমার যত কান্না।
যাকে ভালোবাসা দাও
সে তোমাকে ধর্ষিত করেছে,
তোমার হত্যাকারীকে তুমি চেনো
তবু তার গলাতেই মালা দাও তুমি ;
কিসের সে টানে,হে নারী,
অহল্যার মতো যুবতী পাথর হতে
বারবার তুমি জন্ম নাও ?