জানতে চাই
            মোঃতওহিদুল ইসলাম


কামনার স্রোতে ভেসে কলঙ্কিনী আসে
পিশাচ যত সব দেখে তারে হাসে।
নির্বাক নির্বোধ সমাজে সে আজ
আঁধারে করে সব নিষিদ্ধ কাজ।
অভিমানের কালোমেঘ'চোখের কোণে
তীব্র ব্যথায় কাঁদে আঘাতের ঘর্ষণে।
কপাল পোড়া দুখিনীর মনে কষ্ট বারোমাস
সময় কাটে আঁধার ঘরে না পেয়ে সুখের বাস।
তৃষ্ণা ক্লান্ত চোখ, গভীর ব্যথার জলে ভাসে
মুক্তির পয়গাম নিয়ে তবু নাহি কেউ আসে।
মিথ্যা আশ্বাসে যারা করলো জীবনের সর্বনাশ
তাদের হাতে দেখি পরিবর্তের তরুকের তাস।
কলঙ্কিনী উপাধি দিয়ে যারা রাখলো দূরে
ব্যথা বেদনায় তাদের অন্তর কখনো কি পুড়ে?
                  (১৪/০৩/২১ইং)