জীবনের তরে বিরহ আমার বড় বেশি প্রয়োজন।
যে বিরহ জ্বলে পাঁজরের তলে ধিকিধিকি আজীবন।
বিরহের সুখ-জ্বালা শুরু হয় অমিমাংসিত প্রেমে।
ঝর্ণা যেমন নদী হয়ে বয় পর্বত হতে নেমে।


বিরহে আমার কবিতারা সাজে, বাজে হৃদয়ের সুর।
আমি যারে চাই সে যেন হারায় চিরতরে বহুদূর।
আমি যেন তারে খুঁজি আজীবন, না পাই জীবন মাঝে।
হৃদয় পোড়ানো স্মৃতি যেন সব হাহাকার হয়ে বাজে।


পেয়ে হয় শেষ, না পেয়ে অশেষ, না পাওয়াই চাই আমি।
পেয়ে নিভে যাওয়া আগুনের চেয়ে না পাওয়ার শিখা দামি।
মিলনের লাগি প্রেমে পড়ি না গো! পড়ি বিরহের লাগি।
প্রিয়ার বাহুতে না ঘুমিয়ে যেন বিরহের রাত জাগি।


বিরহ আমার প্রেমকে জাগায়, প্রিয়াকে কাঁদায় দূরে।
আমি একা হেথা প্রেমের বাসর গড়ি বিরহের সুরে।
দু'জনার লাগি দু'জনার চোখে গড়ায় অশ্রুজল।
মিলনে তা নেই, প্রেমকে বাঁচায় বিরহের দাবানল।