বলছে যে লোকে, ইসলাম নাকি খুব শান্তির ধর্ম
কারো নাকি সেতো আগে পিছে নেই, শান্তি দেয়াই কর্ম
ইসলাম হলো মনোনীত দ্বীন, মনোনীত রাতে কক্ষে
বিবিদের ঘরে সিরিয়াল করে, হাত বুলায়েছে বক্ষে
বিবিদের কেউ মায়ের বয়সী, কেউ বা বধুই পুত্রের
কেউ বা আবার শিশুতোষ খুবই, কে বা জানে কোন সূত্রের
কেউ কেউ নাকি বন্ধুকন্যা, কেউ যুদ্ধের বন্দী
শান্তি পেয়েছে দাসী-বাদী সব, শান্তির কতো ফন্দি
শান্তি পেয়েছে কতো বুড়োবুড়ি, নয় বছরের কন্যা
শান্তি পেয়ে যে কতো কতো মালে গনিমত হলো ধন্যা
শান্তি পেয়েছে, বানু কুরাইজা, আবু লাহাবের আত্মা
কুরানে রয়েছে শান্তির বাণী, মিথ্যা পায় নি পাত্তা
দেব-দেবী আর পূজা অর্চনা এইসব বড় মিথ্যা
শিরকের হাতে মুসলিম কেন সঁপে দেবে তার স্বত্তা?
তাইতো শান্তি পেয়ে গেল সব, কাবা-প্রাঙ্গণে মূর্তি
যার যা ধর্ম, ভেঙে চুরে দিয়ে, শান্তি আনবে ফুর্তি
তাইতো ঈমান দণ্ডের মতো, দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে ইসলাম
এনে দেয় শুধু শান্তি শান্তি। শান্তিই হলো তার নাম
যারাই যেখানে অস্বীকার করে শান্তির যতো শর্ত
শান্তিসৈন্য হাসি মুখে এসে ভরে দেবে সব গর্ত
শান্তি তো কোনো অপশান নয়, নয় তা বিলাসি পণ্য
শান্তিই হলো মনোনীত দ্বীন, শান্তি সবার জন্য