বুকের ভেতর তোলপাড় ঝড় হতাশায়।


সুখ খুঁজেছি, বালিশের তলে


উত্তপ্ত বিছানায়।


সুখ খুঁজেছি, নীল পদ্মে


বা রোদেলা আঙ্গিনায়।


সুখ খুঁজেছি, বউয়ের খোপায়,


অচেনা ললনায়।


কত কাব্যে, সাহিত্যে, গল্পে, উপন্যাসে।


সুখ কই আর আছে।


কত কল্পকাহিনী, কত রূপকথা


সুখের সন্ধানে।


মায়ের কোলে,


সুখের নেশায় খুঁজি হন্য হয়ে।


ওরে সুখ,


তুই অচিন পাখি হয়ে,


পাড়ি দিলি কোন দূর দেশে!


একটু সুখ মিলবে ভেবে


প্রেমে পরেছি কতবার!


ওরে সুখ,


তুই মরিচিকা নাকি!


ধরা দিয়ে পালাস আবার!!!


কত সুর, তাল, লয় মিলে গান।


বাড়ায় মনে শুধু হতাশার জাল।


সুখ মেলেনি পর্বতেও


একাকী নির্বাসনেও।


চোখ বুজে খুঁজি


সুখ কই আর আছে!


চলে যাবো সব ফেলে,


গহীন কোন বনে।


নীরবে এবার ডাকি স্রষ্টারে,


“ও রব আমার


সুখ দাও মোরে!”


সিজদায় গিয়ে কেঁদে ভাসাই বুক!


ভাবি… হায় !!!


কত যে বোকা আমি !!!


সব সুখ তবে লুকায়ে এখানে !!!


আর খুঁজি আমি তারে


দুর্লভ উপায়ে।